ভেষজ উদ্ভিদ থানকুনি পাতার চাষ

ভেষজ উদ্ভিদ থানকুনি পাতার চাষ

থানকুনি পাতা আমাদের দেশে একটি পরিচিত ঔষধি গাছ। বিশেষ করে গ্রামে-গজ্ঞে এর ঔষধি গুণের কারণে বেশ কদর। বাড়ির  আশে পাশে কোন যত্ন ছাড়াই এ গাছ জন্মাতে দেখা যায়।  এছাড়াও রাস্তার পাশে, পুকুর পাড়ে, মাঠ কিংবা স্যাঁতস্যাতে খালি জায়গাগুলোতে থানকুনি গাছ দেখা যায়। সারা বছর এই গাছের দেখা মিললেও সাধারনতঃ বর্ষাকালেই বেশি পাওয়া যায়। থানকুনি এক ধরনের বর্ষজীবী লতা জাতীয় গাছ। মাটির উপর লতা বেয়ে বেড়ায় এবং লম্বা বৃন্তের উপর গোলকার খাঁজকাটা কিনারাযুক্ত পাতা উপর দিকে মুখ করে থাকে। গ্রামাঞ্চলে থানকুনি পাতার ব্যবহার আদি আমল থেকেই চলে আসছে।আমাদের দেশের মানুষ থানকুনির পাতাকে বিভিন্ন ভাবেই খেয়ে থাকে। কেউ ভর্তা কিংবা শাক হিসেবে রান্না করে খান ।আবার কেউ পাতা চিবিয়ে এর রস খায় । থানকুনি পাতার মধ্যে রয়েছে অনেক ওষুধি সব গুণ। আমাদের দেশে থানকুনি পাতা কুষ্ঠ এবং চর্ম রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। এছাড়াও জ্বর, পেটের পীড়া, গ্যাস্ট্রিক, হজম শক্তি বৃদ্ধি, আমাশয়, পেট ব্যথা, মুখে ঘা ইত্যাদি রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয় ।

টবে থানকুনি পাতার চাষ পদ্ধতিঃ

থানকুনি পাতা চাষ গ্রামে ও শহরে সব জায়গাই করা যায়। টবে বা যেকোন পাত্রেই এর চাষ করা যায়। মাটির পাত্র বা টব ব্যবহার করলে ২/৩টি ছিদ্র করে নিতে হবে যাতে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পানি পরে যায়। ছিদ্রের উপর ইটের টুকরা বা মাটির চেরা দিতে হবে। বীজ কিংবা অঙ্গজ জনন এর মাধ্যমে থানকুনির বংশবিস্তার হয়।প্রতিটি গিট থেকে শিকড় বের হয়। শিকড়সহ টবের মাটিতে লাগালেই থানকুনি গাছ জন্মে। থানকুনি চাষে বাড়তি কোন যত্ন কিংবা খরচ কিছুই লাগে না।থানকুনি চাষে রাসায়নিক সার এবং কীটনাশকেরও প্রয়োজন হয় না। থানকুনি পাতার তেমন পরিচর্যারও প্রয়োজন নেই। প্রতিদিন নিয়মিত পরিমান মত পানি দিলেই থানকুনি পাতা ভাল থাকে। আবার পানি জমে থাকলেো গাছ মরে যেতে পারে। সেজন্য অতিরিক্ত পানি নিষ্কাশন হচ্ছে কিনা খেয়াল রাখতে হবে।

 

  • del.icio.us: ehteshamul
  • Facebook: Ehteshamul.haque.mallik
  • Google+: u/0/
  • Linked In: pub/ehteshamul-haque-mallik/58/4b9/623
  • Picasa: mshetolrg
  • Twitter: MSHETOLRG
  • Vimeo: user13514979
  • YouTube: mshetolrg
Sunday the 21st. Copyright 2012 শীতল রুফ গার্ডেন।. Hostgator coupon - All rights reserved.